Join 41,521 users and earn money for participation

💔 #ভালোবাসি_হয়নি_বলা02 ❤ ✍ #লেখকঃmahin_al_islam 🆕 #পর্বঃ__08

মাহিনঃ এটা তোমাকে উপহার দিলাম লাভ বার্ড

কথাটা বলেই ডেবিল মার্কা একটা হাসি দিলেন

রাগে সারা শরীর গজ গজ করতে লাগল আমার, ইচ্ছে করতেছে সালারে মাথার ওপর তুলে আছাড় মেরে কোমর ভেঙে ফেলে দেই

কিন্তু আমার ইচ্ছেটা কোনদিন পূরণ হবে না

কিরে কি অবস্থা এখন আমি কারো সামনে যেতে পারবো না😢

পিচ্ছিঃ বউ ও বউ তোমার বাসা থেকে তোমার আংকেল এসেছে,,,।

আমিঃ ওরে আমার পিচ্ছি বর এতক্ষণ তুমি কোথায় ছিলে তোমাকে তো দেখাই পাওয়া যায় না এখন।।। নাকি তোমার বউয়ের খোঁজখবর নেয়া বাদ দিয়ে দিয়েছো

পিচ্ছিঃ আরে বউ কি যে বলোনা লজ্জা লাগে আমি কি আর তোমাকে ভুলে যেতে পারি??

আমিঃ সেটাই তো তুমি কি আমাকে ভুল তে পারো,

পিচ্ছিঃ আরে বউ তোমার গলায় ওটা কিসের দাগ মনে হচ্ছে কেউ কামড় দিয়েছে

হায় আল্লাহ পিচ্চিটা দেখে নিয়েছে এখন যদি সবাইকে বলে দেয় তো আমি কারো সামনে গিয়ে দাঁড়াতে পারবো না

আমিঃ আরে কিছু না ওটা এমনিতেই কি জানি হয়েছে ঘুম থেকে উঠে দেখি এরকম হয়ে আছে ( পিচ্চিকে বুঝতে দেওয়া যাবে না বুঝতে দিলেই সবাই চলে যাবে এই কথাটা)

পিচ্ছিঃ আরে আমি স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি যে কেউ তোমার গলায় কামড় দিয়েছে আর তুমি মিথ্যা বলতেছ কেন আমাকে,,। নিজের স্বামীকে কেউ মিথ্যা বলে?

আমিঃ তুমি আমাকে বিশ্বাস করো না তুমি আমাকে এভাবে বলতে পারলে আজকে আমি আঙ্কেলের সাথে চলে যাব আর আসব না ( ন্যাকামো কান্না করতে লাগলাম)

পিচ্ছিঃ প্লিজ বউ তুমি কান্না করো না তোমার কান্না আমার সহ্য হয় না তুমি কান্না করলে আমার কান্না পায়

আমিঃ ওকে আমি আর কান্না করব না তাহলে চলো নিচে যাই

ওড়না দিয়ে ভালভাবে ঢেকে নিলাম যাতে করে কেউ বুঝতে না পারে বজ্জাত লোকটা কি অবস্থায় ফেলে দিল আমাকে।।।

নিচে গিয়ে দেখি আমার আঙ্কেল আর দুজন কাজিন এসেছে

আব্বুঃ আরে মা এসো এসো তোমরা এখনো রেডি হও নি কেন তোমাদের তো আমি আগেই বলে রাখছি।।

আমিঃ আপু আমরা তো মাত্র রেডি হতে শুরু করছি।।মাত্রই তো আংকেল চলে আসলেন

আব্বুঃ তাহলে আমরা দুই বিয়াই গল্প করি তোমরা গিয়ে তাড়াতাড়ি রেডি হয়ে আসো

আমি আর কিছু না বলে চুপচাপ রুমের দিকে যাইতে রাখলাম।।।

আমি রুমে গিয়ে একটা শাড়ি হাতে নিয়ে ওয়াসরুমে যেতে নিলেই

পিছন থেকে উনি আমাকে জড়িয়ে ধরে

আমিঃ এসব কি হচ্ছে আব্বু কিন্তু রাগ করবে।।

মাহিনঃ রাগ করলে করবে তাতে আমার কি??

আমিঃ এত খারাপ আপনি আপনার আব্বুকে আপনি ভয় পান না??

মাহিনঃ আমি কি বলছি আমি আমার আব্বুকে ভয় পাইনা তোমার সাথে রোমান্স করতে ধরল কিছু খেয়াল থাকে না।।

আমিঃ হয়েছে আর নেকামি করতে হবে না এখন যান গিয়ে ফ্রেশ হয়ে নেন তারাতারি

তারপর দুজনেই ফ্রেশ হয়ে রেডি হয়ে গিয়েছে চলে আসলাম

আমার মাথায় শুধু ঘুর পাক খাচ্ছে কবে আমি আমার প্রতিশোধ টা নিয়ে নেব।।

তারপর সবাইকে সাথে কথা বলে বিদায় নিয়ে চলে আসলাম।

রাস্তায় আর তেমন কোনো কথা হয়নি রাস্তায় শুধু প্রকৃতি দেখতে দেখতে চলে আসলাম উনার সাথে কোনো কথা হলো না আমি দেখলাম উনি চুপচাপ আছেন।।

আমাদের বাসায় আসতেই সবাই আমাদেরকে ঘিরে ধরে দাঁড়িয়ে পরল

আমার কাজ গুলা তোমার সাথে আড্ডা জমায় ফেলছে।।

আর আমিও দেখতেছি অনেক ভালো ভাবেই নিজের শালী কাদের সাথে কথা বলতেছে

আমি তো প্রথমে ভাবছিলাম উনি হয়তো কারো সাথে কথাই বলবে না

আম্মুঃ এইখানে দাঁড়িয়ে সব কথা ভুলে গেলি নাকি তোরা ভিতর আয়

আমিঃ যেভাবে ঘিরে ধরেছে মনে হয় অন্য গ্রহ থেকে এলিয়েন চলে আসলাম আমরা

সিমা: তার থেকেও কম নাকি।।

আমিঃ চুপ থাক শাকচুন্নি কোথাকার

সিমা: কেনরে আমি ওর শাকচুন্নি হলাম কিভাবে আমি তো এখন তোর স্বামীর উপর নজর লাগাইলাম না ।।

আমিঃ বেশি রকম বকবক না করে তোর দুলাভাই কে ভিতরে নিয়ে আয়

সিমা: দুলাভাই ও দুলাভাই দুলাভাই ও দুলাভাই ভিতরে আসেন.

মাহিনঃ এইতো যাচ্ছি ( ওরে বাপরে এই মৃত্যুর চলনবিল মোটেও অসুবিধার মনে হচ্ছে না)

সিমা: আচ্ছা দুলাভাই আপনি আপনার সিঙ্গেল লাইফে কতগুলো প্রেম করেছিলেন??

মাহিনঃ আমিতো হিসাব করে রাখিনি তবে এসব করলে হয়তো 3_4 হাজার হত

সিমা':ছি ছি দুলাভাই আপনার চরিত্র এত খারাপ

মাহিনঃ আমার চরিত্র অনেক খারাপ কেন যে তোমার বোন আমাকে বিয়ে করব বুঝতে পারতেছিনা :::

সিমা: আপনাকে দেখে অনেক ভদ্র মনে হয় কিন্তু আপনি যে এতটাই খারাপ আগে জানতাম না।।। আমি আর আমার বোনকে কখনোই আপনার সাথে যেতে দেবোনা এই বিয়েটা এখানেই সমাপ্তি হবে

মাহিন: ( হায় হায় মজা করতে গিয়ে তো এখন দেখতাছি পুরাই বাঁশ খেয়ে যাব এই মেয়ে কিভাবে আমার কথাটা বিশ্বাস করে দিল 3_4 হাজার মেয়ের সাথে কি প্রেম করা আদৌ সম্ভব??)

আমি আর মেয়েটার সাথে তর্কে না জড়িয়ে সোজা বাসার ভেতর প্রবেশ করলাম কারন এই মেয়েটার সাথে কথা বলতে গেলে ভালো কথা বলা উল্টো দিকে নিয়ে যাবে বুঝতেছি মেয়েটা বেশি সুবিধার না

এই মেয়ের থেকে যত দূরে থাকা যায় ততটাই মঙ্গল হবে হয়তো আমার জন্যে নয় তো কি বানিয়ে ছাড়বে আমাকে।।।

আমি রুমের মধ্যে গিয়ে দেখি আমার বেগম সাহেবা কাপড় চেঞ্জ করতেছে তো আমিও সুন্দর করে ভিতরে ঢুকে দরজাটা বন্ধ করে দিলাম

আমার মনে হল কেউ রুমের ভেতর প্রবেশ করেছে দরজাটা বন্ধ করে দিয়েছে

তাই আমি পিছনে তাকিয়ে দেখি আমার বজ্জাত হনুমান গন্ডার স্বামীটা দাঁড়িয়ে আছে

আমি তাড়াহুড়ো করে আমার দুহাত বুকের উপর রাখলাম

আমিঃ আপনি এই অসময়ে কি করতেছেন এখানে।।

মাহিনঃ বাহ রে আমার যখন খুশি আমি তখনই রুমে আসতে পারি কারণ এটা

আমিঃ দেখুন আপনি এখন বাহিরে যাও না আমি কাপড় চেঞ্জ করতেছি একটু কলে আসেন

মাহিনঃ আমি থাকলে সমস্যা কোথায় আমি তো আর বাহিরের কেউ না।।

আমিঃ আমার লজ্জা লাগতেছে এখন থেকে আপনি বাইরে যাবেন আমি কাপড় চেঞ্জ করে আপনাকে ডেকে নেব

মাহিনঃ আমি বাহিরে যেতে পারবো না ইচ্ছা থাকলে কাপড় চেঞ্জ করো না থাকলে নাই

আমিঃ আপনি এরকম করতেছেন কেন কাপড় টা চেঞ্জ করতে দেন প্লিজ

মাহিনঃ আসো আমি কাপড় পরিয়ে দিচ্ছে।।

তারপরও মেয়ে উঠে এসে শাড়ি টা উনার হাতে নিয়ে নিলেন,,,

তারপর উনিই ঝাড়ের একমাত্র আমার কোমরে গুঁজে দিতে লাগলেন

ওনার প্রতি তার স্পর্শ আমাকে শিহোরিত করে তুলছে

উনি আমার চারিপাশে ঘোরে ঘোরে আমাকে শাড়ি পরিয়ে দিচ্ছে,,,,

তারপর উনি শাড়ির কুচি টাও করে দিলেন

স্পর্শ পেয়ে আমার নিঃশ্বাস ভারী হয়ে যাচ্ছে নিঃশ্বাস নিতে পাচ্ছিনা স্বাভাবিকভাবে কেমন জানি ভারী হয়ে যাচ্ছে মনে হচ্ছে দমবন্ধ হয়ে মরেই যাবো।।

মাহিনঃ এই যে নেন বেগম সাহেবা এবার কুচিটা আপনি খুঁজে দেন।।

আমিঃ সব যেহেতু আপনি করলেন তাহলে খুশি তাও নিশ্চয়ই বলে দিতে পারেন

কথাটা বলে আমি আমার মুখটা উনার কাধের উপর রাখলাম

কারন আমার শরীরে আমি কোন শক্তি পাচ্ছিনা আমি হয়তো যদি উনি আমাকে এইভাবে আর কিছুক্ষণের স্পর্শ করে

মাহিনঃ কি হল মাথা ব্যথা করে নাকি মাথা টিপে দেবো

আমিঃ না আমি একদম ঠিক আছি

মাহিনঃ তোমাকে দেখে তো মনে হচ্ছে না তুমি একদম ঠিক আছ

আমিঃ এত বেশি বোঝেন কি জন্য যেটা করতে বলছি সেটা করেন আমি ঠিক আছি

তারপর উনি যেই আমার কুচি টা গুজে দিলেন আমার সারা শরীরে যেন ভূমিকম্পন বয়ে গেল ।।

আমি আর নিজেকে ধরে রাখতে না পেরে আমার ঠোঁটদুটো উনার ঠোঁটের ডুবিয়ে দিলাম।

চলবে.......

1
$
User's avatar
@Mdemon456 posted 1 month ago

Comments