Join 83,351 users already on read.cash

Period

0 2 exc
Avatar for soyed
Written by   29
1 year ago

প্রথম পিরিয়ডে একটা মেয়ে কেমন অনুভব করে সেটা আসলে লিখে কিংবা বলে বুঝানো সম্ভব নয়, বিশেষ করে ছেলে দের পক্ষে বুঝা কিছুটা কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। যাই হোক আমি কথা না বাড়িয়ে আমার অভিজ্ঞতায় চলে যাই।

২ ডিসেম্বর, ২০১২

তখন আসলে আমি খুবই ছোট ছিলাম, ছোট বলতে সাধারণত বেশিরভাগ মেয়েদের এই বয়সে পিরিয়ড শুরু ই হয় না। কিন্তু আমার ক্ষেত্রে খুবই অল্প বয়সে পিরিয়ড শুরু হয়৷ তখন সবেমাত্র আমি ক্লাস ফোর এর বার্ষিক পরীক্ষা দিয়ে ছুটি কাটাচ্ছি, বয়সের হিসেবে বলতে গেলে আমার বয়স ১১ ও হয়নি তখন। পিরিয়ড সম্পর্কে নূন্যতম ধারণা বলতে কিছুই নেই। যাই হোক সেদিন আমি বিকেলে ঘুমাচ্ছিলাম হঠাৎ করে খুবই অচেনা এবং অস্বাভাবিক পেট ব্যাথায় আমার ঘুম ভেঙে যায়। ঘুম থেকে উঠেও বুঝতে পারছিলাম না কি হচ্ছে। প্রচন্ড অস্বস্তি এবং অদ্ভুত রকমের ব্যাথায় যখন আমি কি করবো বুঝতে পারছি না এমন সময় আমার পড়ে থাকা সাদা ফ্রকে এবং বিছানার চাদরে রক্ত দেখে আমার ভয়ে পুরো শরীর ঠান্ডা হয়ে যায়। ভয়ে কাঁদতে কাঁদতে আমি মায়ের কাছে যাই। মা ও কিছুটা অবাক হয় কিন্তু উনি কিছুটা স্বাভাবিক হয়ে আমাকে বুঝাতে শুরু করেন যে আমি জীবনের একটা নতুন পর্যায়ে পৌঁছেছি। প্রচন্ড ভয়ে ভয়ে আমি তার সব কথা শুনি। আমার বড় বোন ও আমাকে স্যানিটারি প্যাড সম্পর্কে বলা শুরু করে ( মজার ব্যাপার হলো এর কিছু দিন আগেও আমি pad সম্পর্কে কিছু না জেনে লুকিয়ে লুকিয়ে drawyer থেকে প্যাড নিয়ে আমার বারবি ডলের বিছানা বানিয়েছিলাম😅)

এরপরের এক সপ্তাহ ছিলো আমার জন্য খুবই ভয়ংকর৷ আমি ঠিক ভাবে ঘুমাতে পারতাম না। হাঁটা চলা না করে চেয়ারে বসে থাকতাম। বারান্দায় গিয়ে কান্না করতাম যে কেন আমি মেয়ে হলাম। এই বিচ্ছিরি রকমের ঘটনা আমি কিভাবে প্রতি মাসে সহ্য করবো তা ভাবতাম। যখন পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস শুরু হয় এই দিন গুলোতে আমি স্কুলে যেতাম না। আমার কিছু mentally advanced ক্লাসমেট কিছুটা আন্দাজ করতে পেরে আমাকে নানা ভাবে বিরক্ত করতে আসতো, উল্লেখ্য আমি লাজুক প্রকৃতির হওয়ায় এই ব্যাপারটা আমি তাদের কাছে আড়াল করি। তাদের harassment এর ঘটনা গুলো মনে পড়লে এখানো আমার খুব ভয় লাগে। দুই একটা না বললেই নয়৷ একবার আমি ক্লাসে বসে আছি এমন সময় আমার কিছু ক্লাসমেট আমার জামার দিকে তাকিয়ে মুচকি মুচকি হাসা শুরু করে। আমি ভয় পেয়ে যাই, তারপর একজন বলে উঠে "রিয়ানা তোমার জামা তে লাল কিছু একটা লেগে আছে " এটা বলে তারা হাসা শুরু করে। আমি ঘাবড়ে গিয়ে কাঁদতে কাঁদতে ওয়াশরুমে চলে যাই। তারপর গিয়ে দেখি আসলে কিছুই নেই। ওয়াশরুম থেকে বের হয়ে দেখি ওরা বাহিরে দাঁড়িয়ে হাসাহাসি করছে। খুব লজ্জা পেয়েছিলাম সেদিন।

দুঃখের বিষয় হলো PSC,JSC,SSC সবগুলো বোর্ড পরীক্ষার প্রথম দিনই প্রচন্ড ব্যাথা নিয়ে আমার পিরিয়ড শুরু হয়। অজানা অচেনা হল এ খুবই বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছি অনেকবার। যাই-ই হোক এখন আমি নিজেই নিজেকে সামলে নিতে পারি। কিন্তু এই সময়টাতে আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়াটা কিভাবে রোধ করবো সেটা এখনো বুঝতে পারি না

1
$ 0.00
Avatar for soyed
Written by   29
1 year ago
Enjoyed this article?  Earn Bitcoin Cash by sharing it! Explain
...and you will also help the author collect more tips.

Comments