Join 98,598 users already on read.cash

Everything new can happen is the world by 2050!

2 14
Avatar for King74
Written by   37
1 year ago

In the last few years, many things have happened that our previous generation could never have imagined. Think about it, did people in the 1960's or 1970's ever imagine that we could have real-time conversations in a matter of moments with people from one end of the globe to the other in just a few clicks?

I'm sure, if you told someone in 1980 what would happen in the next 50 years, they'd call you "crazy." However, today we are going to discuss, what new things are going to happen in the world by 2050 and what new events we are going to see (of course if I / you survive then what else)!

Note: The images attached to this article are conceptual and in some cases fictional. So don't mistake these images as original images or official images.

2020: New tallest building in the world

Currently the tallest building in the world is the Burj Khalifa, which is 828 meters high and is located in Dubai. But if all goes well, the Burj Khalifa will, not be the tallest building in the world by 2020. Construction of the world's tallest building, Jeddah Tower, located in Saudi Arabia, will be completed in 2020. And when the work is done, it will be the tallest building in the world, with a height of 1000 meters or a total of 1 kilometer.

2021: First space hotel

The space research company Bigelow Aerospace will launch a new spacecraft in space in 2021, which they have named the world's first space hotel. According to them, it will be a full-featured space hotel where anyone can spend a night in space by paying a certain amount of per night fee. Space projects like the Space Hotel have been done before and the plans have been successful. ISS (International Space Station) personnel are already using such an aircraft as their storage room.

2024: SpaceX rocket to Mars

SpaceX was created by Elon Musk in 2002, and SpaceX is now one of the world's most popular and successful aerospace research companies and aircraft manufacturers. In 2024, SpaceX will send a new cargo aircraft (rocket) to Mars. They are also planning to send the first man to Mars after launching the rocket.

2025: The world's population will be 9 billion

Population growth is not only the biggest problem in Bangladesh, it is the biggest problem in the whole world. And this problem is not likely to decrease very quickly. The population will only continue to grow, Unless there is a breakthrough solution or magic. However, according to the United Nations Population Fund (UNPF) estimates, the total population of the world in 2025 will be 9 billion. And in 2050 the population will be more than 10 billion.

2033: AURORA space mission

In 2033, the European Space Agency will launch a new space mission called AURORA. The European Space Agency has always been researching the moon, Mars and asteroids, and they want to take the first initiative to send people to Mars in the future. But before sending humans to Mars first on this mission, they might send a spacecraft and some other animal. Because they also need to study how suitable Mars is for habitation and how easy it is to return to Earth from there.

2035: Quantum Teleportation

No, there is no such thing as a mysterious magical teleportation, where something is moved from one place to another without touching it. By 2035, research on quantum teleportation technology will be carried out and its practical application will be used to create a new reliable communication system. This quantum teleportation will send the polarized state of the photon into space. If this complete technology can be implemented properly, it can bring about a groundbreaking improvement in technology and communication systems.

2050: Countless successes and disasters

We have to move forward 15 years, because what will happen and what will not happen in these 15 years can be said at once. All notable events will gradually become successful and more new events and projects will be worked on. But by 2050 and beyond, the catastrophe will be even greater than the extraordinary human success in the technology sector.

Disaster

By 2050, about 50% of the Amazon rainforest will be lost. The growing population has to be given a place to live, but at this time there will be no more empty space in the world, so the forest will have to be cut down. So by now, about 50% of the Amazon rainforest will be inhabited. 70% of the world's population will live in urban areas. Then there will be only rural areas and the population in rural areas will be very small.


However, another serious problem can be water disaster. By 2050, there will be a shortage of clean drinking water and almost half of the world's population will be without access to safe drinking water. The average lifespan of the world's people can be 76%.

And at that point, global warming will become more severe and the average temperature in most countries of the world may rise much higher than before. And some countries of the world may go under water.

Success

However, the success of the people at this time will not be less. At this time self-driving cars will become very common and many more people will use self-driving cars than now. And at this time, artificial intelligence will become thousands of times smarter than before. Many researchers believe that the AI ​​will become so smart that robots will be able to behave like human real life

This is what will happen 50 years from now, at least if everything goes well. The way people are constantly improving in the technology sector, so these things will happen in the next 30 years, it is rarely said. Maybe 30 years ago we would see all these new things. If you think about 50 years ago today, you can imagine how fast people can be and how fast they can be in the future!

গত কয়েক বছরে এমন অনেক অনেক কিছু ঘটেছে যেগুলোর কথা আমাদের পূর্ববর্তী প্রজন্ম কখনো কল্পনাই করতে পারতো না। ভেবে দেখুন, ১৯৭০ বা ১৯৮০ সালের লোকেরা কি কখনো কল্পনা করতে পেরেছিলো যে আমরা জাস্ট কয়েকটা বাটন প্রেস করেই পৃথিবীর একপ্রান্ত থেকে আরেকপ্রান্তের লোকের সাথে মুহূর্তের মধ্যে রিয়ালটাইম কনভারসেশন করতে পারবো?

আমি নিশ্চিত, ১৯৭০ সালে আপনি যদি কাউকে বলতেন যে, আগামী ৫০ বছরের মধ্যে কি কি ঘটবে, তাহলে সে নিশ্চিত আপনাকে “পাগল” বলতো। যাইহোক, আজকে আলোচনা করতে চলেছি, আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে পৃথিবীতে নতুন কি কি ঘটতে পারে এবং নতুন কি কি ইভেন্ট আমরা দেখতে চলেছি (অবশ্য ততদিন আমি/আপনি যদি বেঁচে থাকি আর কি)!

বিঃদ্রঃ এই আর্টিকেলে অ্যাটাচ করা ইমেজগুলো শুধুমাত্র কনসেপ্ট এবং কিছু ক্ষেত্রে কাল্পনিক। তাই এই ইমেজগুলোকে অরিজিনাল ইমেজ বা অফিশিয়াল ইমেজ ভেবে ভুল করবেন না।

২০২০ :পৃথিবীর নতুন উচ্চতম বিল্ডিং

বর্তমানে পৃথিবীর সবথেকে উঁচু বিল্ডিংটি হচ্ছে Burj Khalifa, যার উচ্চতা ৮২৮ মিটার এবং যা দুবাইতে অবস্থিত। তবে সবকিছু সঠিকভাবে চললে, ২০২০ সালে Burj Khalifa পৃথিবীর সবথেকে উঁচু বিল্ডিং থাকবে না। ২০২০ সালে পৃথিবীর নতুন উচ্চতম বিল্ডিং Jeddah Tower এর কন্সট্রাকশনের কাজ শেষ হবে, যা Saudi Arabia তে অবস্থিত। আর কাজ শেষ হওয়ার পরে এটাই হবে পৃথিবীর সবথেকে উঁচু বিল্ডিং, যার উচ্চতা হবে ১০০০ মিটার বা সম্পূর্ণ ১ কিলোমিটার।০ আর স্বাভাবিকভাবেই Burj Khalifa তখন হয়ে যাবে পৃথিবীর দ্বিতীয় উচ্চতম বিল্ডিং।

২০২১ : প্রথম স্পেস হোটেল

Bigelow Aerospace নামক স্পেস রিসার্চ কোম্পানি ২০২১ সালে নতুন একটি স্পেসক্রাফট মহাকাশে লঞ্চ করবে যেটিকে তারা পৃথিবীর প্রথম স্পেস হোটেল নামকরন করেছে। তাদের মতে, এটি একটি ফুল ফিচারড স্পেস হোটেলই হবে যেখানে যে কেউ নির্দিষ্ট পরিমান পার নাইট ফি পে করে স্পেসে এক রাত কাটিয়ে আসতে পারবে। স্পেস হোটেলের মতো এই ধরনের স্পেস প্রোজেক্ট আগেও করা হয়েছে এবং প্ল্যানগুলো সাকসেসফুলও হয়েছে। ISS (International Space Station) এর কর্মীরা এই ধরনের একটি এয়ারক্রাফটকে তাদের স্টোরেজ রুম হিসেবে ইতোমধ্যেই ব্যাবহার করছে।

২০২৪ : মঙ্গলগ্রহে যাবে SpaceX রকেট

SpaceX কোম্পানিটি ২০০২ সালে ইলন মাস্ক তৈরি করেছিলেন এবং SpaceX বর্তমানে পৃথিবীর অন্যতম জনপ্রিয় এবং সাকসেসফুল অ্যারোস্পেস রিসার্চার কোম্পানি এবং এয়ারক্রাফট ম্যানুফ্যাকচারার। ২০২৪ সালে SpaceX মঙ্গল গ্রহে তাদের একটি নতুন কার্গো এয়ারক্রাফট (রকেট) সেন্ড করবে। তাছাড়া রকেটটি লঞ্চ করার পরে তারা মঙ্গল গ্রহে প্রথম মানুষ পাঠানোরও প্ল্যান করছে।

২০২৫ : পৃথিবীর জনসংখ্যা হবে ৯ বিলিয়ন

জনসংখ্যা বৃদ্ধি শুধুমাত্র বাংলাদেশের সবথেকে বড় সমস্যা নয়, এটা সম্পূর্ণ পৃথিবীর সবথেকে বড় সমস্যা। আর এই সমস্যাটি খুব দ্রুত কমে যাওয়ারও কোন সম্ভাবনা নেই। জনসংখ্যা শুধুমাত্র বাড়তেই থাকবে, যদিনা যুগান্তকারী কোন সল্যুশন পাওয়া যায় বা কোন ম্যাজিক ঘটে। যাইহোক, United Nations Population Fund (UNPF) এর প্রেডিকশন অনুযায়ী, ২০২৫ সালে পৃথিবীর মোট জনসংখ্যা হয়ে দাঁড়াবে ৯ বিলিয়ন। আর ২০৫০ সালে জনসংখ্যা হবে ১০ বিলিয়নেরও বেশি।

২০৩৩ : AURORA স্পেস মিশন

২০৩৩ সালে ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি একটি নতুন স্পেস মিশন স্টার্ট করবে যার নাম AURORA। ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি সবসময়ই চাঁদ, মঙ্গল গ্রহ এবং অ্যাস্টেরয়েডগুলো নিয়ে গবেষণা করে আসছে এবং ভবিষ্যতে মঙ্গল গ্রহে মানুষ পাঠানোর প্রথম ইনিশিয়েটিভ তারাই নিতে চায়। তবে এই মিশনে প্রথমে মঙ্গল গ্রহে মানুষ পাঠানোর আগে হয়তো তারা একটি স্পেস ক্রাফট এবং অন্য কোন প্রানী পাঠাতে পারে। কারন মঙ্গল গ্রহ বসবাসের জন্য আসলে কতোটা উপযোগী এবং সেখান থেকে পৃথিবীতে ফিরে আসা কতোটা সহজ, সে বিষয়েও তাদেরকে স্টাডি করতে হবে।

২০৩৫ : কোয়ান্টাম টেলিপোর্টেশন

না, এখানে কোন রহস্যময় জাদুকরি টেলিপোর্টেশন সম্পর্কে বলা হচ্ছে না, যেখানে কোনকিছুকে না ছুঁয়েই এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় সরানো হয়। ২০৩৫ সালের দিকে কোয়ান্টাম টেলিপোর্টেশন টেকনোলজি নিয়ে রিসার্চ করা হবে এবং সেটির ব্যাবহারিক প্রয়োগও করা হবে যার সাহায্যে একটি নতুন রিলায়েবল কমিউনিকেশন সিস্টেম তৈরি করার লক্ষ্যে। এই কোয়ান্টাম টেলিপোর্টেশনের সাহায্যে ফোটনের পোলারাইজড স্টেটকে স্পেসে পাঠানো হবে। এই সম্পূর্ণ টেকনোলোজিটি সঠিকভাবে ইমপ্লিমেন্ট করা সম্ভব হলে তা প্রযুক্তি এবং কমিউনিকেশন সিস্টেমে একটি যুগান্তকারী উন্নতি এনে দিতে পারে।

২০৫০ : অসংখ্য সাফল্য এবং বিপর্যয়

১৫ বছর এগিয়ে যেতে হলো, কারন এই ১৫ বছরে কি হবে এবং কি হবে না সেসব একবারেই বলা যায়। উল্লেখযোগ্য সব ইভেন্টগুলোই আস্তে আস্তে সফল হবে এবং আরও নতুন নতুন ইভেন্ট এবং প্রোজেক্ট নিয়ে কাজ করা হবে। তবে ২০৫০ সালের দিকে এবং এরপরে প্রযুক্তির সেক্টরে মানুষের অসামান্য সাফল্যের থেকে বিপর্যয় ঘটবে আরও বেশি।

বিপর্যয়

২০৫০ সাল পর্যন্ত অ্যামাজন রেইন ফরেস্টের প্রায় ৫০% ই হারিয়ে যাবে। বাড়তে থাকা জনসংখ্যাকে থাকার জায়গা করে দিতে হবে তবে এই সময়ে এসে পৃথিবীতে আর তেমন কোন খালি জায়গাই থাকবে না, যার ফলে কেটে ফেলতে হবে বন-জঙ্গল। তাই এতদিনে অ্যামাজন রেইন ফরেস্টের প্রায় ৫০% ই জনবসতিতে পরিবর্তিত হয়ে যাবে। পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার ৭০% ই বসবাস করবে শহর অঞ্চলে। তখন গ্রাম অঞ্চল নামে মাত্র থাকবে এবং গ্রাম অঞ্চলে জনসংখ্যাও হবে খুবই কম।

তবে আরেকটি গুরুতর সমস্যা হতে পারে পানি বিপর্যয়। ২০৫০ সালের দিকে পরিষ্কার খাওয়ার পানির অভাব দেখা দিতে পারে এবং পৃথিবীর প্রায় অর্ধেক জনসংখ্যা পরিষ্কার খাওয়ার পানির অভাবে পড়তে পারে। পৃথিবীর মানুষের অ্যাভারেজ লাইফস্প্যান হয়ে দাঁড়াতে পারে ৭৬%।

আর এমন সময়ে এসে, গ্লোবাল ওয়ার্মিং হয়ে পড়বে আরো বেশি গুরুতর এবং পৃথিবীর অধিকাংশ দেশের গড় তাপমাত্রা আগের তুলনায় অনেকটা বেড়ে যেতে পারে। আর পৃথিবীর কয়েকটি দেশ চলে যেতে পারে পানির নিচে।

সাফল্য

তবে এসময় মানুষের সাফল্যেরও কমটি থাকবে না। এসময় সেলফ ড্রাইভিং কার হয়ে পড়বে খুবই সাধারন এবং এখনকার তুলনায় অনেক বেশি পরিমান মানুষ সেলফ ড্রাইভিং কার ব্যাবহার করবে। আর এসময় আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স হয়ে পড়বে আগের থেকে হাজার হাজার গুন বেশি স্মার্ট। অনেক রিসার্চার মনে করেন যে, AI ততদিনে এতোটাই স্মার্ট হয়ে যাবে যে, মানুষের রিয়াল লাইফ ফ্রেন্ডের মতো বিহেভ করারও ক্ষমতা রাখবে রোবট।

এগুলোই ঘটবে আজ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, অন্তত যদি সবকিছু ঠিক থাকে। মানুষ টেকনোলজির সেক্টরে যেভাবে প্রতিনিয়ত উন্নতি করেই চলেছে, তাই আগামী ৩০ বছরে এগুলো ঘটবে, এটা খুব কমই বলা হয়। হতে পারে ৩০ বছরের অনেক আগেই আমরা এই সব নতুন কিছু দেখতে পাবো। যদি আজ থেকে ৫০ বছর আগের কথা চিন্তা করেন, তাহলেই ধারনা করা যায় যে মানুষ কতোটা ফাস্ট এবং কতোটা ফাস্ট ফিউচারে হতে পারে!

2
$ 0.01
$ 0.01 from @TheRandomRewarder
Avatar for King74
Written by   37
1 year ago
Enjoyed this article?  Earn Bitcoin Cash by sharing it! Explain
...and you will also help the author collect more tips.

Comments

Great article, although you have to clean this up a bit. Keep up the great work.

$ 0.00
1 year ago

I am very happy to receive such a good comment from you. Thank you

$ 0.00
1 year ago