Join 91,686 users already on read.cash

💝 বড় লোকের জেদি মেয়ে 💝

0 18 exc
Avatar for soyed
Written by   29
1 year ago

গল্পঃ-💝 বড় লোকের জেদি মেয়ে 💝

পর্বঃ-২৭/ সাতাইশ

💙≠≠=≠≠≠≠≠≠≠💙≠≠≠≠≠≠≠≠≠≠≠≠💙

আমি আর নিশু ঘুরাঘুরি করে একটা ফুসকা দোকানে গিয়ে ফুসকার অর্ডার দিলাম( নিশুর সাথে থাকলে নিঝুম কে কিছু টা ভুলে থাকা যায় নিশুর মধ্যে কি আছে জানি না তবে আমার মন খারাপ সময় মনটা ভালো করে দেয় আর পড়ালেখায় আমার এক ইঞ্চি ও ছাড় দেয় আমি পড়ার সময় ওকে মেনে চলি তাই আজ ওকে নিয়ে আম্মু বললো ঘুরে আসতে তাই ঘুরতে বের হলাম)

ফুচকাওয়ালা ফুসকা দিলো দুই প্লেট আমি খাওয়া শুরু করলাম আসলে ফুসকার প্রতি একটা নেশা হয়ে গেল নেশাটা নিঝুমের কারনে হয়েছে ওর সাথে প্রতিদিন ফুসকা খেতে হতো। ফুসকা খাওয়ার মাঝখানে নিশু আমাকে একটা ফুসকা মুখে ডুকিয়ে দিলো আমি একটা ফুসকা নিশুকে খাইয়ে যেই না সামনে তাকাবো সাথে সাথে আমার চোখ কপালে নিঝুম আমার দিকে অগ্নি দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে যেন আমাকে খেয়ে ফেলবে,,,

নিশুঃ- কিরে ওদিকে এভাবে তাকিয়ে আচিস কেন

আমিঃ- সামনে দেখ

নিশুঃ-সামনে কি ( নিশু সামনে তাকাতেই)

নিশুঃ- মেয়েটাকে কে আর এভাবে তাকিয়ে আছে কেন

আমিঃ-ও হচ্ছে নিঝুম

নিশুঃ- কি ও নিঝুম ( দাড়া এখন ই তো খেলার সময়)

নিশু আমাকে আরেকটা ফুসকা খাইয়ে দিলো নিঝুমের সামনে খাইয়ে আবার আমার মুখটা ওড়না দিয়ে মুছে দিচ্ছে

আমিঃ-( নিশু কি করতেছে) এই থাম

নিশুঃ- কেন তোমার মুখে ফুসকা লেগে চিলো মুছে দিলাম ( দেখ ও না কি হয়)

নিঝুম আমাদের সামনে চলে আসে

নিঝুমঃ- বাহ্ আজকে নতুন আরেক টা

আমিঃ-আসলে আপনি ভুল ভাবতেছেন

নিঝুমঃ- কি ভুল ওই মেয়ে টা কে

আমিঃ- আসল ও আমার,,( আর বলতে পারলাম না আমাকে থামিয়ে নিশু)

নিশুঃ- আপনি কে আর আমার ওর সাথে কি সম্পর্ক

নিঝুমঃ- আপনার ও মানে

নিশুঃ- ও মানে বুঝনে না আপনি কি কচি খোকা,আপনি কে

নিঝুমঃ- আমি হচ্চি ওর এক্স গার্লফ্রেন্ড

নিশুঃ- কি এক্স তাহলে সমস্যা নাই ভুলে যান,, আর শুনুন ও হচ্ছে আমার লাইফ লাইন + ফুফাতো ভাই + আমার স্টুডেন্ট

নিঝুমঃ- মানে বুঝলাম না

নিশুঃ- আমি নিশু মজুমদার ওর মামাতো বোন এবং হবু বউ( নিঝুম বেবি তুমি আমাকে একনো চিনোই নাই)

নিঝুমঃ- হহহহহবুবু বউ মমমমমানে

আমিঃ- ওই কি বলতেছিস ( নিশু এসব কি বলতেছে কিছুই মাথা ডুকতেছে না)

নিশুঃ- তুমি চুপ করো আজকে ফাইনাল টা খেলো নি

আমিঃ- মানে

নিশুঃ- একটা ও কথা বলবে না দেখতে থাকো( চোখ গরম করে)

নিঝুমঃ- না আমি এটা বিশ্বাস করি না

নিশুঃ- কেন করো না,, আচ্ছা তুমি কে ওকে বিয়ে করবে

নিঝুমঃ- জীবনে ও না ওর মতো ক্যারেক্টারলেস মানুষ কে কখনো না

নিশুঃ- ও ক্যারেক্টারলেস হলে ও আমার কাছে ফেরেস্তা সো আর ওর সাথে কখনো কথা বলা কিংবা ওর জীবনে ব্যাক করতে পারবে না ওকে, না হলে আসল রুপ দেখাতে ভাদ্য হবো

নিঝুমঃ- ছি ছি আশিক ছি তোমার জন্য আমার মনে এখন এই টুকু ও ভালোবাসা নেই সব ঘৃণা,, আর হ্যা আমি আজকে ভেবেছিলাম সব কিছু ভুলে তোমারে মেনে নিবো কিন্তু আজ আমার চোখের সামনে অন্য আরেকটা মেয়ে বলতেছে তোমার হবু বউ বিশ্বাস করো মরে যেতে ইচ্ছে হচ্ছে কিন্তু না আমি মরবো না তোমার মতো বিশ্বাসঘাগকের কারনে কেন মরবো। বাই দ্যা ওয়ে মিস্টার আশিক ভালো থাকবেন আমার জীবন টা ধংস করে

আমিঃ- দেখো নিঝুম (হাত ধরে)

নিঝুমঃ- এক জাটকা হাতটা ছাড়িয়ে নিলো আর আমার সামনে দিয়ে চলে গেল

নিশুঃ- ( নিঝুম রাণী, ভালো থেকো, আসল খেলা জমে গেল) এই যাস না আমার হাত টেনে ধরে

আমিঃ- আমি পিছন ফিরে ঠাসসসসসসসস করে দিলাম একটা চড়

আমিঃ- এই এটা করলি তুই জানিস ও খুব জেদি মেয়ে ও এখন কিছু করে ফেললে

নিশুঃ-ও কিছু করবে না গ্যারান্টি আমি( নাক টেনে টেনে)

আমিঃ- আরে রাখ তোর গ্যারান্টি আমি তোর হবু বর তোর লাইফ লাইন তাই

নিশুঃ-এ্যা এ্যা এ্যা

আমিঃ-ওই কাঁদবি না একদম উত্তর দে

নিশুঃ- আসলে আমি,,, 😓

আমিঃ- কি হলো বল আসলে তুই কি ( হাত ঝাকিয়ে)

নিশুঃ- শুনবি কেন এমন করছি

আমিঃ- হুম বল আমার কিন্তু খুব রাগ হচ্ছে

নিশুঃ- নিঝুম কে বুঝালাম

আমিঃ- কি বুঝালি এখানে উল্টা পাল্টা বলে

নিশুঃ- বুঝালাম প্রিয় মানুষ অবহেলা কেমন ও তো তোরে ভুলে বুঝে গেছ তাই না আরে প্রিয় মানুষ কে একটু হলে ও বিশ্বাস করতে হয় ও তো তোকে বিশ্বাস করলো না তুই কতটা কষ্ট পাইছিস সেটা এই ২০ দিনে আমি বুঝেছি তের কষ্ট দেখে আমারো অনেক কষ্ট হতো তাই তারে আজ কষ্ট দিলাম দেখি ও যদি তোরে সত্যি ভালোবাসে থাকে তাহলে তোর কাছে সত্যি জানতে আসবে আর যদি ইগো কে বড় করে দেখে তাহলে আসবে না আর ওই মেয়ের সাথে তোর কখনো যাবে না যে নিজের মানুষকে ইগোর কারনে আপন করতে পারে না তাহলে বিয়ের পরে সামান্য ঝগড়া থেকে অনেক কিছু হয়ে যাবে এখন অপেক্ষা কর ও যদি তোরে সত্যি ভালোবাসে থাকে তাহলে ও তোর জীবন আসবেই

আমিঃ- সত্যি তো তোর মাথায় এত বুদ্ধি

নিশুঃ-হুম, ( হা হা তাই বুদ্ধি না হলে এত কিছু কেমতে করলাম তুমি শুধু ভালো করে পরীক্ষা টা দাও দেখবে তুমি জীবনের সবচেয়ে দামি জিনিস টা পাবো ভালোবাসা দিয়ে বরে যাবো জীবন)

আমিঃ- কিরে কি ভাবিস

নিশুঃ-না কিছু না

আমিঃ- এখন জিদের কারনে যদি কিছু করে বসে আমার তো ভয় হচ্ছে খুব ভালোবাসি যে

নিশুঃ- শুন ওর কিছু হবে না আর আপাতত আমার মনে হয় না নিঝুম তোর জীবন আসবে তাই বলছি ভালো করে পড়াতে মন দে আর নিঝুম কে ভুলে যা

আমিঃ- চাইলে ও যে ভুলতে পারবো না

নিশুঃ-আমি তোকে ভুলিয়ে দিবো( হা হা তাই নাকি সেটা সময় বলে দিবে)

আমিঃ- হুম তুই আমার পাশে থাকিস তাহলে হয়তো পারবো

নিশুঃ-হুম থাকবো( সেটাই তো আমার প্লান আজ চাক্সেস)

আমিঃ-সরি

নিশুঃ-কেন

আমিঃ- ওই যে চড় মারলাম তাই

নিশুঃ- সরি তে হবে না

আমিঃ- কি করতে হবে

নিশুঃ-আমার কথা মতো চলতে হবে

আমিঃ- যতা অঙ্গা মহারানী,একন বলেন আপনি আমি কি করবো

নিশুঃ- আপাতত বাইক র্স্টাট দে

আমিঃ- ওকে

নিশুঃ- আর শুন নিঝুম কে এড়িয়ে চলবি

আমিঃ- হুম চলবো কিন্তু এখন থেকে পড়াশোনা পুরো সময় দিবো আর তুই আমার পাশে থাকবি আমি ভুলে যাবো নিঝুম নাকে কেউ আমার জীবনে ছিলো কিন্তু কষ্ট হবে

নিশুঃ- সত্যি ( এই তো পাখি লাইনে আসলে তোমার এই কথা শুনার জন্যই তো এত আয়োজন সেই চিটাগং থেকে মা বাবা কে ছেড়ে এখানে,,, আজ আমি সফল বাকি সফল তোমার পরীক্ষা শেষে যদি ভালো করো তাহলে হবো তোমার বাবা মায়ের চোখের মনি হবো আমার স্বপ্ন ও পূরন হবে)

আমিঃ- আচ্ছা বাইকে উঠ

নিশু বাইকে উঠে আমাকে হালকা জড়িয়ে ধরে আর আমি বাইক চালিয়ে বাসায় চলে আসি সন্ধ্যা নিশুর সাথে পড়তে বসি ও খুব সুন্দর করে আমার পড়া গুলো বুঝিয়ে দিলো আমি যেগুলো কাঁচা ওগুলো নিশু মিনিটের মধ্যে করে ফেলে মেয়েটা সত্যি বিলিয়েন্ট তারপর পড়া লেখা করে খাইয়ে দাইয়ে শুয়ে পড়লাম।

পরেরদিন ভার্সিটিতে যাই নিঝুম আমাকে দেখে মুখ ঘুরিয়ে চলে যায় শিমুলের সাথে আমি ও ক্লাসে আসি স্যার ও আসে স্যার আসার কিছুক্ষণ পর মিমি আসলো ক্লাসে তারে দেখে খুব খুশি হলাম স্যার মিমিকে পারিবারিক স্বামী সন্তানের কথা জিজ্ঞেস করলো( ওহহ হ্যা মিমির একটা বেবি হইছে নাম আরমান পুরাই অনিক ভাইয়ের চেহারা)

মিমি এসে আমার পাশে বসলো কারনে নিঝুম যাদের সাথে তাদেরকে মিমি ছিনে না মানে পরিচিত না

মিমিঃ- কিরে কি অবস্থা

আমিঃ-আলাহামদুলিল্লা বালো তোর

মিমিঃ-আমারো ভালো

আমিঃ- তা অনিক ভাই ভাগিনার কি খবর

মিমিঃ-অনিক তো কিছুদিন আগে আবার চলে গেল আর আরমান ওর দাদুর সাথে আছে

আমিঃ-তা আজ কি মনে করে

মিমিঃ-আসলে অনিক বললো ভালো করে পড়তো যেন রেজাল্ট ভালো হয় তাই আজকে আসলাম তোদের থেকে নোট নিবো,,, তা নিঝুম রানী ওখানে কেন

আমিঃ- তুই জানিস না

মিমিঃ- কি জানবো

আমিঃ- সত্যি জানোস না

মিমিঃ- আরে বাবা কি জানবো তুই না বললো

আমিঃ- আমাদের ব্রেকআপ

মিমিঃ-মজা নিস না সত্যি বল

আমিঃ- সত্যি কসম

মিমিঃ- কি বলিস কেন

আমিঃ- আচ্ছা ক্লাস শেষে বলি এখন ক্লাস কর

মিমিঃ- ওকে

তারপর স্যার ক্লাস শুরু করল

স্যারঃ-আশিক,মেহেদী,শাওন,শিমুল দাড়া ও

আমরা দাড়ালাম

স্যারঃ-শুনো পুরো ক্লাসে তোমাদের চারজন ভালো করছো কিন্তু তোমাদের অনেক ভুল ও অনেক মিস্টিক আছে তাই আমি চাই এগুলো যেন ফাইনাল পরীক্ষায় না হয় তাই আরো ভালো করে যে কয়দিন আছে ভালো করে পড়ো, তোমরা চেষ্টা করলে আমাদের ভার্সিটি অনেক সুনাম হবে

আমিঃ- ইনশাআল্লাহ স্যার আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো

স্যারঃ-গুড, আর ক্লাসে ******কয়েকজনের নাম বললো তোমরা ভালো করে পড়ে যেটা জমা দিলে ওটা দিয়ে তোমাদের ভালো রেজাল্ট আসবে না আর নিঝুম তুমি কি করলে

নিঝুমঃ- কেন স্যার

স্যারঃ- তোমার কাজ ভালো হয়নি আমি চাই তুমি ও ভালো করো

নিঝুমঃ- জ্বী স্যার

ক্লাস শেষে আমি আর মিমি বাহিরে আসলাম মিমি কে সব কিছু বললাম

মিমিঃ- নিঝুম কে কি বলবো এরকম ভিডিও ও অন্য মেয়ের সাথে দেখলে যে কেউ সন্দেহ করবে আর তুই সত্যি টা বের কর

আমিঃ- আপাতত ওটা থাক পরীক্ষা শেষে নিঝুমের ভুল ভাঙিয়ে দিবো

মিমিঃ- আমার মনে হয় কি রিনা সব কিছুর মূল ওকে আগে থেকে দেখতে পারি না

আমিঃ- নারে কেউ কি চাইবে নিজের সম্মান এবাবে শেষ করতে তব৷ ষড়যন্ত্রকারী গভীর পানির মাছ তবে আমি ওকে বের করবোই ও যতই আড়ালে থাকুক না কেন ওরে কঠিন শাস্তি দিবো এবং নিঝুম কে ও

মিমিঃ- আচ্ছা আমি নিঝুমের সাথে কথা বলি তুই থাক

আমিঃ-নারে তাহলে আমি আসি আমাকে যেতে হবে

মিমিঃ- আচ্ছা

মিমিঃ- কিরে কেমন আছিস

নিঝুম মিমিকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে দিলো

মিমিঃ-এই পাগলী কাঁদিস কেন

নিঝুমঃ- (*****-*----****)নিঝুম মিমি কে কিচু বললো

নিঝুমঃ- এখন আমি করবো বল

মিমিঃ-আমি কি বলবো দেখিস আশিক কিন্তু ওরকম না

নিঝুম আর মিমি অনেক কথা বললো

-+-+-+-+--+-++-(+-

দেখতে দেখতে কেটে গেল সময় চলে আসলো পরীক্ষা আমি ও এই কয়মাস ভালো করে পড়ালেখা মন দিয়ে করি,,, নিঝুম কে এভোয়েট করি নিঝুম ও আমাকে দেখলে অন্য দিকে চলে,,, ব্যাস কষ্ট হতো কিন্তু নিশুর দুষ্টুমি গুলোতে মানিয়ে নেয়,,,,, আমার পড়া লেখার নিশু সবর্ত সাহায্য করতো আর সব সময় আমার সাথে লেগে থাকতো,,, আজকে পরীক্ষা আপু দুলাভাই কে ফোন করে সালাম দিলাম ওরা দোয়া করে দিলো আমার পরীক্ষা শেষে ওরা আসবে এখন আসবে না আমার পরীক্ষা ক্ষতি ,,, আব্বা আম্মু কে সালাম দিলাম ওরা দোয়া করি দিলো

আমিঃ- দোয়া করিস আমি যেন আব্বু স্বপ্ন ও তোর পূরন করতে পারি

নিশুঃ- হুম তোকে পারতেই হবে তাহলে তো আমি সফল হবো এত কিছু করলাম কেন তুই সফল হলে সবার চোখের মনি তো আমি ভালো করে দিস উম্মা

আমি পরীক্ষা দিতে চলে আসি তখন নিঝুম

পরবর্তী পর্বের জন্য অপেক্ষা করুন...........

Plz wait for next part

1
$ 0.00
Avatar for soyed
Written by   29
1 year ago
Enjoyed this article?  Earn Bitcoin Cash by sharing it! Explain
...and you will also help the author collect more tips.

Comments